HomeTIPS

সর্বক্ষণ ক্লান্ত লাগে! আপনি এই জটিল রোগগুলির শিকার নন তো!

সর্বক্ষণ ক্লান্ত লাগে! আপনি এই জটিল রোগগুলির শিকার নন তো!
Like Tweet Pin it Share Share Email

পর্যাপ্ত ঘুমের পরেও অনেক সময়ে ক্লান্তি অনুভব করি আমরা। সারাদিন ঘুমঘুম ভাব যেন পিছু ছাড়তেই চায় না। কেন এই অবসাদ? ক্লান্তিরই বা কারণ কী? এসব নিয়েই সম্প্রতি কিছু তথ্য সামনে এনেছে প্রিভেনশন ডট কম নামের একটি ওয়েবসাইট।

প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, সাম্প্রতিক এক গবেষণা জানাচ্ছে, ঘন ঘন ক্লান্ত হয়ে পড়লে পাঁচটি বিষয়ে নজর দেওয়া জরুরি—

১। অ্যানিমিয়ায় ভুগছেন কি না, সে বিষয়ে খেয়াল রাখুন। অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতায় ভুগলে রক্তে রেড ব্লাড সেল বা হিমোগ্লোবিন কমে যায়। এর অন্যতম লক্ষণ হল ক্লান্ত হয়ে পড়া। সঙ্গে মাথা ঘোরা এবং শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যাও দেখা দেয়। এক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞ বা চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়াই ভাল।

২। রাতে ঘুমের মধ্যে স্লিপ অ্যাপনিয়া বলে একটা সমস্যা হয়। এতে ঘুমের মধ্যেই মস্তিষ্কে অক্সিজেন সরবরাহ কমে যায়, ফলে হঠাৎ ঘুম ভেঙে যায়। পরমুহূর্তেই রোগী আবার ঘুমে তলিয়ে যায় বলে বুঝতে পারে না। কিন্তু এতে ঘুমের যে ব্যাঘাত ঘটে, তাতে সারা দিন ঘুম-ঘুম ভাব থাকে। স্লিপ অ্যাপনিয়া থাকলে ওজন কমাতে হবে, ধূমপানের অভ্যাস থাকলে তাও ছাড়া প্রয়োজন।

৩। অতিরিক্ত ডায়েট নিয়ন্ত্রণ, পুষ্টিকর সুষম খাদ্যের অভাব আপনাকে ক্লান্ত করে দিতে পারে। যথেষ্ট আমিষ ও শর্করা খাওয়ার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। খাবারে থাকতে হবে পর্যাপ্ত ভিটামিন ও খনিজ।

৪। ডিপ্রেশন বা অবসাদ থেকেও ক্লান্তিভাব আসতে পারে। কোনো কিছুতে উৎসাহ না পাওয়া, সবকিছুতে নেতিবাচক ধারণা, খাওয়ার সময়ে রুচির অভাব ইত্যাদি থাকতে পারে সঙ্গে।

৫। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ডায়াবেটিসের রোগীদের মাঝেমধ্যেই ক্লান্ত ও নিস্তেজ লাগে। বিশেষ করে, যাদের ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকে না। তেমন হলেও বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়া জরুরি।

Comments (0)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *